ইজতেমা নিয়ে গুজব ছড়ালে পরিণতি হবে ভয়াবহ : র‌্যাব মহাপরিচালক

আসন্ন বিশ্ব ইজতেমাকে কেন্দ্র করে গুজব ছড়ালে তার পরিণতি ভয়াবহ হবে বলে জানিয়েছে র‌্যাব মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ।

তিনি বলেন, “স্যোসাল মিডিয়ায় কেউ বিশ্ব ইজতেমাকে কেন্দ্র করে গুজব ছড়ালে তাৎক্ষণিক কেউ তা বিশ্বাস করে শেয়ার দেবেন না। না জেনে না শুনে এবং চেক না করে গুজব শেয়ার দিলে তার পরিণতি হবে ভয়াবহ। তৃতীয় পক্ষ যেন কোনো সুযোগ না নিতে পারে, কোনো বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে না পারে, সে জন্য মুরুব্বিরাসহ আয়োজকদেরও সতর্ক থাকতে হবে।”

বৃহস্পতিবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) বিএসইসি ভবনে র‌্যাব মিডিয়া সেন্টারে আসন্ন বিশ্ব ইজতেমা-২০১৯ উপলক্ষে নিরাপত্তা ব্যবস্থার বিষয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

এসময় তিনি বলেন, ইজতেমায় ইউনিফর্ম পরিহিত পোশাকের চেয়ে দ্বিগুণ থাকবে সাদা পোশাক পরিহিত র‌্যাব। এ ছাড়া প্রতিটি খিত্তায় সিসি টিভি ক্যামেরা থাকবে। পাশাপাশি হেলিকপ্টার, নদীতে বোট, রাস্তায় জিপ এবং সোটরসাইকেলে টহল দেবে র‌্যাব।

বেনজীর আহমেদ বলেন, বিভেদ আর মতভেদের কারণে এবারের বিশ্ব ইজতেমায় চ্যালেঞ্জ একটু বেশি। এ কারণে, এবার আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী বেশি সতর্কাবস্থায় থাকবে।

তাবলিগের মুরুব্বি ও মুসুল্লিদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বেনজীর আহমেদ বলেন, আপনারা আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভের জন্য এখানে উপস্থিত হবেন। কোনো প্রকার অশান্তি ও বিশৃঙ্খলা সেজন্য আপনাদেরও দায় রয়েছে। কোনো অসুবিধা হলে র‌্যাবকে জানাবেন, আমরা সব ব্যবস্থা নেব।

র‌্যাব মহাপরিচালক আরও বলেন, আগামী ১৫ থেকে ১৮ ফেব্রুয়ারি চার দিনব্যাপী বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠিত হবে। ইজতেমার প্রথম দুদিন অর্থাৎ ১৫ ও ১৬ ফেব্রুয়ারি তাবলিগের মুরুব্বি মাওলানা মো. যুবায়েরের তত্ত্বাবধানে পরিচালিত হবে। পরবর্তী দুদিন ১৭ ও ১৮ ফেব্রুয়ারি ইজতেমার কার্যক্রম পরিচালিত হবে সৈয়দ ওয়াসিফুল ইসলামের তত্ত্বাবধানে।

শেয়ার করুন