মোটেল আর হোটেলের মধ্যে পার্থক্য কী

বেড়াতে গিয়েছেন দূরের কোনো শহরে। থাকার জায়গার ওপরে আসলে ভ্রমণের আনন্দ অনেকটাই নির্ভর করবে। এ সময়ে আপনি হোটেলে উঠবেন না মোটেলে উঠবেন তা নিয়ে চিন্তায় পড়তে পারেন। আবার এই দুই ধরনের জায়গার মাঝে পার্থক্য কী সেটাও আপনাকে বিভ্রান্ত করতে পারে। আসলে হোটেল আর মোটেলের মাঝে কী কোনো পার্থক্য আছে?

প্রথমেই আপনাকে জানতে হবে দুটো নামের পার্থক্য। ‘হোটেল’ নামটি এসেছে ফ্রেঞ্চ শব্দ hôtel থেকে, তা মোটামুটি ১৬০০ শতক থেকেই প্রচলিত। এর অর্থ এমন একটা জায়গা যেখানে থাকতে পারবেন, খাবার খেতে পারবেন, বিনোদন পাবেন ও অন্যান্য সেবা দেওয়া হবে। অন্যদিকে ‘মোটেল’ শব্দটি অনেক নতুন, তার প্রচলন হয় ১৯২০ দশকের দিকে। ‘হোটেল’ ও ‘মোটর’ এ দুটি শব্দ মিলিয়ে তৈরি হয় মোটেল কথাটি। মূলত হাইওয়ের পাশে তৈরি হোটেল যেখানে ভ্রমণের মাঝে মাঝে ভ্রমণকারীরা বিশ্রাম নিতে পারে, এমন জায়গা হলো মোটেল।

হোটেল আর মোটেলের সেবার মাঝেও পার্থক্য আছে। মূলত বেশ কিছুদিন থাকার জন্য হোটেল বেছে নিতে পারেন। আর লম্বা যাত্রার মাঝে বিরতি দিতে এক দুইদিন থাকার জন্য মোটেল বেছে নিন। লম্বা সময় থাকা যায় বলে হোটেলে সেবার পরিমাণও বেশি থাকে। সেখানে লাউঞ্জ, জিম, স্পা ও অন্যান্য মনোরঞ্জনের ব্যবস্থা থাকতে পারে।

এ ছাড়া হোটেলে বেশ বড় লবি থাকে, সেখানে কিছুক্ষণ অপেক্ষাও করা যায়। মোটেলে সাধারণত পার্কিং লট থেকেই নিজের নিজের রুমে চলে যাওয়া যায়। হোটেলগুলো থাকে কোনো আকর্ষণীয় ট্যুরিস্ট স্পটের কাছে, আর মোটেল থাকে রাস্তার পাশে। হোটেলের খরচটাও মোটেলের থেকে বেশি হয়ে থাকে। এসব বিষয় বিবেচনা করে আপনার ভ্রমণের সাথে হোটেল মানাবে নাকি মোটেল, তা আপনিই ভেবে নিন।

শেয়ার করুন